সিন্দাবাদের প্রথম সমুদ্র-যাএা-pranbontajib

সিন্দাবাদের প্রথম সমুদ্র-যাএা-pranbontajib

সিন্দাবাদের প্রথম সমুদ্র-যাএা-pranbontajibon


সিন্দাবাদের প্রথম সমুদ্র যাএা


বহুদিন আগের কথা। সিন্দবাদ নামের এক যুবক বাগদাদ শহরে বাস করত। তারা বাবা ছিলেন ধনী সওদাগর। অঢেল টাকাপয়সা ও দালানকোঠা ছিল তার। বাবার মৃত্যুর পর সমস্ত সম্পদের মালিক হলো সিন্দবাদ। সিন্দবাদ কোনো কাজ করত না। কিন্তু ইচ্ছে মতো খরচ করত। দামী পোশাক আর খানাপিনার পিছনে অনেক টাকা খরচ করত সে। সবার খাওয়া দাওয়া সব কিছুর ব্যয় সিন্দবাদ করত। সিন্দবাদ তার বন্ধুকে বলল......

সিন্দবাদঃ- চিন্তা করো না বন্ধু,সব খরচ আমার।

সিন্দাবাদের বন্ধুঃ-  মুঁচকি হেঁসে বলল ঠিক আছে বন্ধু তুমি থাকতে চিন্তা কিসের।

সিন্দবাদ একদিন দেখল তার টাকার থলে খালি। তখন তার হুঁস হলো।

সিন্দাবাদঃ- " বিশ্বাসই হচ্ছে না যে, আমি আমার সমস্ত টাকা খরচ করে ফেলেছি!" বিড়বিড় করে নিজেকেই বলল সিন্দবাদ।

সিন্দবাদ ঠিক করল বাবার মতো সেও বাণিজ্যে যাবে। এজন্যে প্রথমে সে বিক্রি করল নিজের বাড়ি।  বাড়ি বিক্রির টাকায় কিছু দামী রেশমি কাপড় এবং মসলা কিনল। তারপর বন্দরের দিকে রওনা হলো।

এক সওদাগর সিন্দবাদকে বলল...আমরা প্রথমে বসরায় যাব, তারপর যাব খোলা সমুদ্রে।

একদল সওদাগর জাহাজে মাল বোঝাই করছিল। তারা সিন্দবাদকে তাদের সাথে যোগ দিতে বলল। সিন্দবাদ উঠে পড়ল তাদের জাহাজে। সমুদ্রে এক সপ্তাহ চলার পর তারা একটি দ্বীপের কাছে নোঙর ফেলল। রাতে রান্নার জন্যে দ্বীপে আগুন জ্বালাতেই দ্বীপটি ভীষণভাবে কেঁপে উঠল।

তাদের মধ্যে কেও বলল এই দ্বীপ তো দেখি নড়ছে......
আরেক জন বলল এটা তো দ্বীপ নয়!
জাহাজের নাবিকরা চিৎকার করে বলল,' আমরা ভুল করে বিশাল এক তিমির পিঠে উঠেছি!' তারা লাফিয়ে সাগরে পড়ল। তারপর দ্রুত জাহাজের দিকে সাতঁরাতে শুরু করল তারা। অনেকেই সমুদ্রে ডুবে গেল কিন্তু সিন্দবাদ ছিল ভাগ্যবান।  সে একটি কাঠের বাক্সের উপর ভর করে সারা রাত ভেসে রইল।  শেষ পর্যন্ত সে একটি দ্বীপে এসে পৌঁছাল।

এক ঘোড়সওয়ার সিন্দবাদকে দেখতে পেয়ে তাকে তাদের রাজার কাছে নিয়ে গেল। সিন্দবাদ রাজাকে শোনাল তার ভ্রমণের কাহিনী। ' এখন আমি বাড়ি থেকে বহু দূরে,' সে দীর্ঘশ্বাস ফেলল।

রাজা বললেনঃ- 'আমার রাজ্যে থাকো,' বললেন রাজা।

সিন্দবাদঃ- ঠিক আছে।

একদিন  সিন্দবাদ বন্দরে কাজ করছিল,এমন সময় জাহাজের এক ক্যাপ্টেন তার কাছে এগিয়ে এলো।

ক্যাপ্টেনঃ- 'জনাব,  এই রেশমি কাপড় ও মসলাগুলো কোথায় বিক্রি করতে পারি?' সে জানতে চাইল।

সিন্দবাদ অবাক হয়ে বলল,'আমার কিছু রেশমি কাপড় ছিল ঠিক এমনই....।'

ক্যাপ্টেনঃ- ' এই রেশমি কাপড়গুলো ছিল সিন্দবাদ নামের এক নাবিকের,'বলল ক্যাপ্টেন।

সিন্দবাদঃ- 'আমি সেই সিন্দবাদ! '

চিৎকার করে বলল সিন্দবাদ।

ক্যাপ্টেনঃ- কিন্তু আমি ভেবেছিলাম আপনি ডুবে গেছেন!

সিন্দবাদঃ- আসলে আমি বেঁচে আছি।

ক্যাপ্টেন রেশমি কাপড় ও মসলাগুলো সিন্দবাদকে ফিরিয়ে দিল। সেগুলো বিক্রি করে সিন্দবাদ কিছু টাকা যোগাড় করল। তারপর জাহাজে চেপে রওনা দিল বাগদাদের দিকে।

সিন্দাবাদের পুনরায় সমুদ্রে যাএা আসছে.....




ভুতের গল্প পড়ুনঃ-


বাস ড্রাইভারের ভয়ংকর ভুতের গল্প সত্য ঘটনা |২০২২|


মাদ্রাসা ছাত্রের ভয়ংকর ভুতের গল্প সত্য ঘটনা |২০২২|


ভুতের গল্পের ওয়েবসাইটঃ- Bhoot club


স্কুল ছাত্রীর ভয়ংকর ভুতের গল্প |২০২২| 



Post a Comment

Previous Post Next Post

ADS